বিয়ানীবাজারে আসামী ধরতে বাঁধার মূখে পুলিশ, ধস্তাধস্তি

বিয়ানীবাজারে ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করতে গিয়ে বাঁধার মূখে পড়েছে পুলিশ। এ সময় পুলিশের কাজে বাঁধা দেন পলাতক আসামীর দুই ভাই। তারা পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি করলে স্থানীরা ছুটে এসে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেন।
বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার দুবাগ ইউনিয়নের মেওয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতারকৃত ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী তাহমিদ হোসেন চৌধুরী (৪০) দুবাগ ইউনিয়নের মেওয়া এলাকার মাহমুদ হোসেন চৌধুরীর ছেলে।  এ সময় পুলিশের কাজে বাঁধা ও ধস্তাধস্তির অভিযোগে পলাতক আসামী তাহমিদের দুই ছোট ভাই ওয়াহিদ হোসেন চৌধুরী (২৫) ও তাওহিদ হোসেন চৌধুরীকে (২৪) আটক করা হয়। পুলিশ তিনজনকে পৃথকভাবে থানায় নিয়ে আসে।

পুলিশ জানায়, সিলেটের শাহপরান থানার একটি জি.আর মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী তাহমিদ হোসেন চৌধুরী। পরিবার নিয়ে তারা সিলেট বসবাস করেন। তাদের গ্রামের বাড়ি উপজেলার মেওয়া গ্রামে। আজ বৃহস্পতিবার  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এএসআই রতনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী তাহমিদকে গ্রেফতার করেন। এসময় তার সহোদররা পুলিশের কাজে বাঁধা দেন এবং পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তিতে লিপ্ত হন।

এব্যাপারে বিয়ানীবাজার থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) জাহিদুল হক বলেন, পুলিশ আসামীকে গ্রেফতার করতে গেলে স্বজনদের সাথে টুকটাক ঝামেলা হয়। আমরা আসামীর দুই ছোট ভাইকে আটক করে থানায় নিয়ে এসেছি। তিনি জানান, পলাতক আসামী তাহমিদ হোসেন চৌধুরীর বিরুদ্ধে সিলেটের শাহপরান থানায় জিআর মামলা রয়েছে। এ মামলায় তিনি পলাতক আসামী ছিলেন। আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। আটককৃতদের দুই জনের বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। উপরে নির্দেশে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!