চাকা খুলে যাওয়ায় কেনিয়ায় যাত্রীবাহী বিমানের জরুরি অবতরণ

উড্ডয়নের সময় একটি চাকা খুলে যাওয়ায় কেনিয়ার এলদোরেট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণে বাধ্য হয়েছে একটি যাত্রীবাহী বিমান। সোমবার সকালে কেনিয়ার অভ্যন্তরীণ বিমান সংস্থা সিলভারস্টোন এয়ারের একটি বিমানে এই ঘটনা সংস্থাটির এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয় আর বিমানটি নিরাপদে অবতরণ করে।

 

 

অক্টোবরের শুরুতে সিলভারস্টোন এয়ারের আরেকটি বিমান ৫৫ জন যাত্রী নিয়ে নাইরোবির একটি বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। ওই ঘটনায় কয়েক জন যাত্রী আহত হয়।

 

সোমবার সকালে সিলভারস্টোন এয়ারের বিমানটি কেনিয়ার উত্তর পশ্চিমাঞ্চলের লোদওয়ার থেকে রাজধানী নাইরোবির উদ্দেশে রওনা দেওয়ার পর জরুরি অবতরণে বাধ্য হয়। পরে বিমানটির যাত্রীদের অন্য একটি বিমানে করে নাইরোবি পৌঁছে দেওয়া হয়।

 

তবে বিমানটিতে কতোজন যাত্রী ছিলেন তা জানাতে অস্বীকৃতি জানান সিলভারস্টোন এয়ারের এক মুখপাত্র। তিনি জানান, এই ঘটনায় তদন্ত চালাচ্ছে তাদের বিমানসংস্থা।

 

সোমবারের জরুরি অবতরণের পর সিলভারস্টোন এয়ারের বিমানের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন কেনিয়ার বহু নাগরিক। তাদের অভিযোগ, নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ দায়িত্বে অবহেলা করছে।

 

কেনিয়ার সিভিল এভিয়েশন অথরিটির (কেসিএএ) মহাপরিচালক জিলবার্ট কিবে বলেছেন, তারা সিলভারস্টোন এয়ারকে নিরীক্ষণ করছেন। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, কেনিয়ার আকাশসীমা নিরাপদ ও সুরক্ষিত তারা বদ্ধপরিকর। এছাড়া নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ জানানোর আগে ধৈর্য্য ধারণের আহ্বান জানান তিনি।

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!