দিওয়ালির আতশবাজিতে ভারতে ৭ জনের মৃত্যু

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দিওয়ালি উৎসবকে কেন্দ্র করে আতশবাজির ঘটনায় গতকাল রোববার গোটা ভারতে অন্তত সাত জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজধানী দিল্লিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে সবচেয়ে বেশি। ভারতীয় টেলিভিশন এনডিটিভির এক অনলাইন প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।

 

কর্মকর্তারা বলছেন, গতকাল একদিনে শুধু দিল্লির দমকল বাহিনী (ডিএফএস) আগুন লাগার তিন শতাধিক ঘটনার খবর পেয়ে সেসব স্থানে অগ্নিনির্বাপনের কাজ করেছে। আতশবাজির কারণে শহরের যত্রতত্র আগুন লাগার ঘটনাও ঘটেছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

 

 

 

আতশবাজির কারণে গতকাল গোটা ভারতে শত শত মানুষ অগ্নিদগ্ধ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অনেকে শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়েও গেছেন হাসপাতালে। রাজস্থানের রাজধানী জয়পুরের এক হাসপাতালেই গতকাল আতশবাজিতে দগ্ধ হয়ে ৪৯৮ জন ভর্তি হয়েছেন। যার মধ্যে ১০৮ জন মারাত্মক অসুস্থ।

 

চেন্নাইয়ের এক সরকারি হাসপাতালে অগ্নিদগ্ধ ৩১ রোগী ভর্তি হয়েছেন গতকাল। যাদের মধ্যে বেশিরভাগ বয়সে তরুণ। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আতশবাজির ঘটনায় দগ্ধ হয়ে যারা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তাদের মধ্যে বেশিরভাগের আঙ্গুল মারাত্মকভাবে পুড়ে গেছে।

 

পুলিশ বলছে, দিওয়ালি উপলক্ষ্যে আতশবাজির ঘটনায় ছত্তিশগড় রাজ্যের কোন্ডাগাঁও জেলায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। উড়িষ্যার ভুবেনশ্বর জেলায় একজন দগ্ধ হয়ে মারা গেছেন। সরকারি এক কর্মকর্তা আতশবাজির আগুনে পুড়ে প্রাণ হারিয়েছেন।

 

মহরাষ্ট্রের সাংলি শহরে আতশবাজি থেকে সৃষ্ট আগুনে বেশ কিছু দোকান পুড়ে গেছে। আগুন ধরেছে অনেক ভবনে। গোটা দেশেই আতশবাজির ঘটনায় রাস্তার পাশে থাকা বিভিন্ন মুদি দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ভারতের দমকল বাহিনী গতকাল হাজার হাজার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা মোকাবিলা করেছে।

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!