জাতি হিসেবে এই ঐক্যটা আমাদের খুব দরকার: সাকিবের স্ত্রী শিশির

ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) নিষেধাজ্ঞা পেয়ে আগামী একবছর মাঠের বাইরে থাকতে হবে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে।

তিন দফায় ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব গোপন রাখায় দেশ সেরা এই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে তিনটি সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে এ নিষেধাজ্ঞা দেয় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ অভিভাবক। এ নিষেধাজ্ঞা মেনে নিয়েছেন সাকিব, করেছেন দুঃখ প্রকাশও।

তবে স্বাভাবিকভাবেই এই নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি অনেকটা ঝটকার মতো এসেছে চ্যাম্পিয়ন ক্রিকেটারের পরিবারের সামনে। ক্রিকেট মাঠে যাকে দেখা যায় সবচেয়ে উৎফুল্ল, সেই সাকিবই যখন ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ- তখন এর প্রভাব তার পরিবারের ওপর পড়াটাই স্বাভাবিক।

তবে সাকিব আল হাসানের স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির এ বিষয়ে পরিচয় দিয়েছেন শক্ত মানসিকতার। জানিয়েছেন, জীবনে কঠিন সময় আসবেই, আর এগুলোকে শক্তভাবে মোকাবিলা করতে পারাটাই কিংবদন্তিদের উদাহরণ। এসব বিষয় লিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের প্রোফাইলে স্ট্যাটাস দিয়েছেন শিশির।

যেখানে তিনি লিখেছেন, ‘কিংবদন্তিরা কখনোই রাতারাতি কিংবদন্তি হয়ে যান না। তাদের অনেক কিছুর মধ্য দিয়েই যেতে হয়। কঠিন সময় আসবেই এবং তারা জানে কীভাবে শক্ত থেকে এসবের মোকাবেলা করতে হয়। আমরা জানি সাকিব আল হাসান কতটা শক্ত মনের মানুষ।’

‘এটা (আইসিসির নিষেধাজ্ঞা) বলা যায় নতুন শুরুর সূচনা। সে নিশ্চিতভাবেই আগের চেয়ে আরও শক্তভাবে ফিরে আসবে। ইনজুরির কারণে এর আগেও অনেকবার ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে হয়েছে। আমরা সবাই দেখেছি বিশ্বকাপে সে কী দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন করেছে। এটা শুধুমাত্র সময়ের ব্যাপার। আপনাদের সবার সমর্থন ও ভালোবাসায় আমরা আপ্লুত। সকলের এই ঐক্যটা জাতি হিসেবে খুব দরকার আমাদের।’

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!