রাজনগরে ধর্ষণের শিকার ৫ম শ্রেণীরছাত্রী

মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলায় ধর্ষণের ঘটনা ঘঠেছে। ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৫ম শ্রেণী পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রী। বিদ্যালয়ে মডেল টেস্ট পরীক্ষা দিতে যাওয়ার পথে সে ধর্ষিত হয় বলে জানা গেছে।


বুধবার সকালে উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের চরকারপাড় গ্রামে এলকার বখাটেরা জোরপূর্বক ভাবে পালাক্রমে  ঐ ছাত্রীকে ধর্ষণ করার সময় সে চিৎকার শুরু করলে আশপাশের লোকজন এসে উদ্ধার করে। এসময় ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও রাজনগর থানা পুলিশের সহায়তায় মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, রাজনগর উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের চরকারপার (আব্দুল্লাহপুর) গ্রামের ৫ম শ্রেণীর ঐ ছাত্রী আব্দুল্লাহপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মডেল টেস্ট পরীক্ষা দিতে যাচ্ছিল। যাওয়ার পথে একই গ্রামের তছদ্দর মিয়ার ছেলে আনছার মিয়া (৩৫) ও ওয়াসিদ মিয়ার ছেলে মঈনুদ্দিন (২৬) তাকে জোড় করে সড়কের পাশের একটি ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে চেপে ধরে উভয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ওই স্কুল ছাত্রীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে নিয়ে আসেন। তিনি পুলিশকে খবর দিলে রাজনগর থানার পুলিশ এসে তাকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতালে ভর্তি করে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এখনো থানায় মামলা হয়নি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফেরদৌসী আক্তার বলেন, ঘটনার শিকার মেয়েটিকে নিয়ে আমার কাছে এসেছিলন অভিভাবকরা। আমি রাজনগর থানার পুলিশকে খবর দিয়ে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছি। তাদেরকে বলা হয়েছে পূর্ণ আইনি সহায়তা দেয়া হবে।

এব্যাপারে রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  আবুল হাশিম বলেন, আমরা ঘটনার শিকার মেয়ের বক্তব্য শুনেছি। সে আনছার নামে একজনের কথা বলেছে। আমারা আসামী গ্রেফতারের জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!