টুপুর-টুপুর বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিশ্বনবির জন্মদিনে শান্তির বার্তা কালাইন-কাটিগ

আজ ১০নভেম্বর শান্তির আহ্বানে সম্প্রীতির বার্তা ছড়াল জুলুসে মোহাম্মদির বর্ণাট্য শোভাযাত্রায়। কঁচিকাঁচা শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সের হাজার পাঁচেক নবি প্রেমিকদের বিশাল এ শান্তি মিছিল বের হল কালাইন-কাটিগড়ায়। আসামের বিভিন্ন জেলায় কেন্দ্রীয়ভাবে বের হয়েছে ঈদে মিলাদুন্নবীর শোভাযাত্রা। বিশ্বনবি হজরত মহম্মদ (সা:) এর জন্মদিনকে সামনে রেখে তাঁরই দেখানো পথে শান্তির সুগন্ধী ছড়াতে কালাইন-কাটিগড়া পরিক্রমা করে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার লম্বা বিশাল এ শান্তি মিছিলটি। অসহিষ্ণুতা, ঘৃণা, বিদ্বেষ, হানাহানিকে শিকেয় তুলে সমাজের সর্বস্তরে শান্তির বার্তা পৌঁছাতে সেই ব্যতিক্রমী শোভাযাত্রাটি এদিন বের করল কাটিগড়া ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন কমিটি।
বেনজির দৃষ্টান্তে রবিবার সকাল হতেই কালাইন-কাটিগড়া সহ পশ্চিম শিলচরের বিভিন্ন গ্রাম থেকে নানা রং-বেরঙের ফ্লেক্স, ফেস্টুন, পতাকা লাগিয়ে বাইক ও ছোটগাড়ি নিয়ে জমায়েত হন কাটিগড়ী হুজুরের বাড়ির সামনে। নির্ধারিত সূচী অনুযায়ী এদিন সকাল ন’টায় কাটিগড়ার হুজুর মওলানা ইব্রাহিম আলি সাহেবের দোয়া নিয়ে কাটিগড়া বাজার হয়ে জোয়াই-বদরপুর জাতীয় সড়ক ধরে চৌরঙ্গি, টিকরপাড়া, লক্ষীপুর, কালাইন, গুমড়া বাজার পরিক্রমা করে সীমান্তবর্তী সাদিরখাল, লেভারপুতা, আমতলা, কিন্নরখাল, রাজাটিলা, তেলিটিকর, লাটিমারা হয়ে কাটিগড়ায় এসে মিছিল শেষ হয় এ শোভাযাত্রাটি। টুপুর-টুপুর বৃষ্টির মধ্যেও শান্তি মিছিলের গতিরোধ হয়নি, চলে সাউন্ড সিস্টেমও। আজ আমাদের খুশির দিন – বিশ্বনবির জন্মদিন, বারো ই রবিউল আউয়াল তোমায় জানাই আচ্ছালাম, বিশ্বনবির জন্মদিনে বিশ্বের উপর শান্তি আসুক, নারায়ে তাকবির-নারায়ে রিসালত ইত্যাদি স্লোগানে আকাশ-বাতাস মুখরিত করেন শান্তি মিছিলে অংশ গ্রহনকারীরা। এতে শামিল হন আহলে সুন্নত ওয়াল জামাতের স্থানীয় আলেম-উলেমারাও। কাটিগড়া ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন কমিটির সম্পাদক হাফিজ মুজাম্মিল লতিফি জানান, বিশ্বনবির জন্মদিনে শান্তি-সম্প্রীতির বার্তা সর্বস্তরে পৌছে দিতেই এ শোভাযাত্রার আয়োজন। এদিনের শোভাযাত্রায় সব ধরণের প্রশাসনিক সহযোগীতায় কাছাড় জেলা প্রশাসন সহ কাটিগড়া সার্কল অফিসার, কাটিগড়া থানার ওসি, কালাইন-গুমড়া পুলিশ সহ সীমান্তরক্ষী বাহিনীকেও পূর্ণ সহযোগীতার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন কাটিগড়া ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন কমিটির সম্পাদক হাফিজ মুজাম্মিল লতিফি। এদিকে, কালাইন এম ই মাদ্রাসা থেকে পায়ে হেঁটে বরইতলি মোকামে এসে জিয়ারতের পর মিলাদ শরীফ পাঠ করে শিরণী বিতরণ করে আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে আরেকটি পৃথক মিছিলের সমাপ্তি হয়। অন্যদিকে, পূর্ব কাটিগড়ার তারিণীপুর, শিয়ালটেক, শিবনারাইনপুর, দুধপুর, বোয়ালিপার, ফুলবাড়ি প্রভৃতি স্থানেও পদযাত্রা করে বিশ্বনবীর জন্মদিন পালন করার খবর পাওয়া গেছে।

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!