বাথরুমের পানি ও ইলেকট্রিক শক দিয়ে রাতভর নির্যাতন

র‌্যাগিংয়ের নামে অমানুষিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার সোনাকান্দা এলাকায় অবস্থিত বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজির ডিপ্লোমা কোর্সের ১ম বর্ষের ছাত্র আসিফ (১৭)। শনিবার এই ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন আহত ছাত্রের বাবা মাসুম বিল্লাহ।

নির্যাতনের শিকার ডিপ্লোমা কোর্সের ১ম বর্ষের ছাত্র আসিফ জানান, বন্দরের মেরিন টেকনোলজিতে তিনি ১ম বর্ষের ছাত্র। মেরিনে বড় ভাই খ্যাত ২য় ও ৩য় বর্ষের ছাত্ররা ১ম বর্ষের ছাত্রদের দিয়ে র‌্যাগিংয়ের নামে বিভিন্ন শারীরিক কসরত, কাপড় ধোয়ানোসহ অনেক কাজ করান।

এ নিয়ে অধ্যক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ করায় গত বৃহস্পতিবার রাতে বড় ভাই খ্যাত রিয়াজুল, গোলাম আজম, আলিফসহ অনেকে তাকে ধরে নিয়ে ছাত্রাবাসের পুরাতন ভবনে নির্যাতন করেন। রাত ৯টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত চলে এ নির্যাতন।
নির্যাতনের বর্বরতার বর্ণনা করতে গিয়ে সে জানায়, কথিত বড় ভাইরা তাকে বাথরুমের পানি খাওয়ানোসহ ইলেকট্রিক শক দিয়ে নির্যাতন চালায়।

ঘটনাটি জানতে পেরে বন্দর থানার এএসআই শামীম ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে শুক্রবার ভোরে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করান। এ ঘটনায় আহত ছাত্র আসিফের বাবা শনিবার খুলনা থেকে এসে বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে মেরিন ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী শরীফা সুলতানা বলেন, ঘটনার সংবাদ পেয়ে রাতেই আমি ঘটনাস্থলে এসে ছাত্রকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছি। এ ঘটনায় সিনিয়র পরিদর্শক তাকিউদ্দিন সানিকে প্রধান করে ৯ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এদিকে, শনিবার দুপুরে অভিযুক্ত ছাত্ররা অধ্যক্ষের অফিস ঘেরাও করে আহত ছাত্রের সাথে সমঝোতা করে দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে।

এ ব্যপারে বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে নির্যাতিত ছাত্রের বাবার লিখিত অভিযোগ নেয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!