জব্দ করা অর্থ কোটি বেকারদের কর্মসংস্থানে ব্যয় করার প্রস্তাব

রাশেদা রওনক:
জানি, প্রস্তাবটি শুনতে খটকা লাগবে, তারপরও একটা বিষয় মাথায় ঘুরছে! এই অভিযান গুলো হতে যে কোটি কোটি টাকা পাওয়া যাচ্ছে, সেগুলো লাখো-কোটি বেকার তরুণ, কৃষক, দিন মজুর সহ যারা জীবন সংগ্রামে দিন কাটাচ্ছে, উদ্যোক্তা হবার শর্তে তাদেরকে বৈধ প্রক্রিয়ায় দিয়ে দেয়া যায় কিনা? প্রশ্ন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যাটাস দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রাশেদা রওনক।

কারণ এই টাকার হকদারতো তারাই! সাধারণের হক মেরে আজ তাদের এই সাম্রাজ্য! আহা মানুষ যদি জানতো, সুখ আসলে কিসে, তাহলে কি এমন করতো?!

যারা চিন্তা করছেন, কোটি টাকা কত টাকায় হয়, কখনো একসাথে দেখিনি বলে হা হুতাশ করছেন, তারা একবার ভাবেন, কি সুখে আছি আমরা, কি সুন্দর একটা জীবন আমাদের সাধারণের! ছয়জন বডি গার্ড নিয়ে ঘুমাতে যাওয়া, খেতে যাওয়া যার প্রয়োজন হয়, সেই লোকের তো আসলে আমার আপনার মতো স্বাধীন কোন জীবন নেই!

চাইলেই রিকশায় করে ঘুরে বেড়াতে পারেনা, টিএসসিতে বসে মরিচ চা, মাল্টা চা সহ ১০১ রকমের চা এর স্বাদ নিতে পারেনা| জীবনে আসলে তারাই সুখী, যাদের কোন লোভ নেই………।। কি বলেন, কথা ঠিক কিনা!?

লেখক: রাশেদা রওনক, সহকারী অধ্যাপক, নৃবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!