দূষণের কবলে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা

এবার সর্বাধিক দূষণমাত্রার সাক্ষী রাজধানী। শুক্রবার দিল্লিতে বাতাসের মান নেমেছে সিভিয়ার প্লাস জোনে। সকাল ৮টায় এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স ছিল ৪৫৯। দিল্লির দূষণের জন্য পাঞ্জাব ও হরিয়ানাকে দায়ী করেছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। স্কুলের ছাত্রদের মাস্ক বিলি করেছেন তিনি।
এদিকে, দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে খেলতে আসা বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা দূষণের কারণে বেশ সমস্যায় পড়ছেন বলে খবর। চলতি মওসুমে দিল্লিতে এই প্রথম বাতাসের মান ইমার্জেন্সি স্তরে নেমে গেছে। ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসে শেষবার এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। পাঞ্জাব ও হরিয়ানার জন্যই দিল্লি গ্যাস চেম্বারে পরিণত হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। দিল্লি সরকার স্কুলগুলির জন্য ৫০ লাখ এন নাইন্টি ফাইভ মাস্ক কিনেছে।
অরবিন্দ কেজরিওয়াল অভিযোগ করেছেন, খাট্টার ও ক্যাপ্টেন সরকার চাষিদের স্টাবল পোড়াতে বাধ্য করছে। মানুষ পাঞ্জাব ও হরিয়ানা ভবনে বিক্ষোভ করেছে সরকারের বিরুদ্ধে। মানুষ শ্বাস নিতে পারছে না।
বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচেও পড়েছে দূষণের ছায়া। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের জন্য আরো মাস্কের ব্যবস্থা করছে তাদের টিম ম্যানেজমেন্ট। অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে যখন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা অনুশীলন করছিলেন, তখন এয়ার ইনডেক্স কোয়ালিটি ছিল ৪০০-এর উপরে। যা খুবই খারাপ ক্যাটাগরির মধ্যে পড়ে।

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!