পর্তুগালে সন্ত্রাসীর গুলিতে পা হারালেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ী

পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে প্রবাসী হাবিবুর রহমান বাবলু নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কৃষ্ণাঙ্গদের দ্বারা গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। স্থানীয় সময় গত শনিবার রাত ৭:৩০ মিনিটে লিসবনের অদূরে সাকাভেই এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী থানার পর্তুগাল প্রবাসী হাবিবুর রহমান বাবলুকে একদল কৃষ্ণাঙ্গ তার দোকানে ঢুকে প্রথমে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে টাকা দাবি করে। ক্যাশ কাউন্টারে টাকা না পাওয়ার এক পর্যায়ে তার পায়ে গুলি করে তারা পালিয়ে যায়।

রাতে অ্যাম্বুলেন্স ও পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বাবলুকে লিসবনের ডাউনটাউনের সাও জোসে হাসপাতালে নিয়ে আসে। তাৎক্ষণিক জরুরী অস্ত্রোপাচারের মাধ্যমে ডাক্তার সব পর্যালোচনা করে তার বাম পায়ের হাঁটুর নিচের অংশ কেটে ফেলেন। বর্তমানে তার অপারেশন পরবর্তী চিকিৎসা চলছে সাও জোসে হাসপাতালে।

ইতিমধ্যে এ ঘটনায় লিসবনে বাংলাদেশ কমিউনিটিতে শোকের মাতাম বইছে। বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ইতিমধ্যে তাকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছেন। পর্তুগাল আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, বৃহত্তর নোয়াখালী অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা তাকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে গিয়েছেন এবং তার পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

তাছাড়া লিসবন সিটি কাউন্সিলর ও পর্তুগাল বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রানা তসলিম উদ্দিন তাকে হাসপাতালে দেখতে যান। সেসময় তিনি আগামী পদক্ষেপগুলো কি কি হবে সে ব্যাপারে পরামর্শ দিয়েছেন। আইনগত ব্যবস্থাসহ যেকোন দরকারে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

তিনি বিষয়টি লিসবন মিউনিসিপ্যাল অ্যাসেম্বলিতে উপস্থাপন করার কথা জানান এবং পরামর্শ দেন যারা রাত অবধি ব্যবসা করেন, প্রত্যেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সিসিটিভি ক্যামেরার ব্যবস্থা করা সহ অযথা অন্য কমিউনিটির লোকজনের সঙ্গে ঝামেলায় না জড়ানো।

আরও সংবাদ
error: You are under arrest !!